প্রতিটি এলাকা ইন্টারনেটের আওতায় নিয়ে আসা হবে : জুনাইদ আহমেদ পলক

polok

পিবিএ, চট্টগ্রাম : তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, ‘আগামীতে বিশ্বে আইসিটি সেক্টরে লিজেন্ড হবে বাংলাদেশ। সে লক্ষ্যে ২০২১ সালকে টার্গেট করে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি। সময় এসেছে মেধাভিত্তিক অর্থনীতির ওপর ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে তোলার।’  আজ শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে কক্সবাজার শহরের এক অভিজাত হোটেলে চট্টগ্রাম প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (চুয়েট) উদ্যোগে তিন দিনব্যাপী ‘তড়িৎ, কম্পিউটার কৌশল ও যোগাযোগ-প্রযুক্তি বিষয়ক দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক সম্মেলন’ এর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

পলক আরও বলেন, ‘আজ থেকে ১০ বছর আগে ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা ছিল ৫৬ লাখ। আর এখন ৯ কোটি ৬০ লাখ। সরকারের কোনও দফতরে ডিজিটাল সার্ভিস ছিল না। এখন ৫ শতাধিক সেক্টরে অটোমেটিক সার্ভিস চালু করা হয়েছে। আইটি সেক্টরে কোনও কর্মসংস্থান ছিল না। এখন এ সেক্টরে প্রায় ১০ লাখ মানুষ কাজ করছে। ইনফরমেশন কমিউনিকেশন নেটওয়ার্ক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে শুরু করে গ্রাম পর্যায়ে চলে গেছে। প্রায় ৩৮শ’ ইউনিয়নে ফাইবার অপটিক ক্যাবলের মাধ্যমে হাইস্পিড ইন্টারনেট ব্রডব্যান্ড পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। ২০২১ সালের মধ্যে দেশের প্রতিটি এলাকা ডিজিটাল হাইস্পিড ইন্টারনেটের আওতায় নিয়ে আসা হবে।’

টেকনিক্যাল প্রোগ্রাম কমিটির চেয়ারম্যান প্রফেসর ডক্টর মো. মশিউল হকের সভাপত্বিতে এ সমাপনি অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের মঞ্জুরি কমিশনের চেয়ারম্যান প্রফেসর আবদুল মান্নান, চুয়েটের উপচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ রফিকুল আলম, আইইইই এর চেয়ারম্যান প্রফেসর ডক্টর সেলিয়া শাহনাজ।

এবারে আন্তর্জাতিক বিজ্ঞান সম্মেলনে দেশি-বিদেশি ৩০০ জন ইলেক্ট্রনিক্যাল, ইলেক্ট্রনিক, কম্পিউটার সায়েন্স এবং টেলিকমিউনিকেশন বিষয়ে শিক্ষক, বিজ্ঞানী, গবেষক, স্কলার ও পরিকল্পনাকারি অংশগ্রহণ করেন।

 পিবিএ/জিজি

আরও পড়ুন...